মডেল পিয়াসা ও মৌ ফের ১২ দিনের রিমান্ডে

প্রকাশিত: ৯:০৬ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৬, ২০২১

মডেল পিয়াসা ও মৌ ফের ১২ দিনের রিমান্ডে

ডায়ালসিলেট ডেস্ক::৩ দিনের রিমান্ড শেষে মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা ও মরিয়ম আক্তার মৌ’র ফের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। গতকাল মডেল পিয়াসাকে গুলশান থানার মামলায় ২ দিন, ভাটারা থানার মামলায় ৩ দিন এবং খিলক্ষেত থানার মামলায় ৩ দিন মোট ৮ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী। অপরদিকে, মরিয়ম আক্তার মৌ’র ফের ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সতব্রত সিকদার।
আদালত সূত্র জানায়, গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টায় ৩ দিনের রিমান্ড শেষে পিয়াসাকে আদালতে হাজির করে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ। পরে গুলশান থানার মামলায় ৭ দিন, ভাটারা থানার মামলায় ১০ দিন এবং খিলক্ষেত থানার মামলায় ৭ দিন সব মিলে ২৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়। মডেল পিয়াসার আইনজীবী জামিল সিদ্দিকী বাপ্পি রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। অপরদিকে, রাষ্ট্রপক্ষে ঢাকা মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু রিমান্ডের জোর দাবি জানান। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আবদুল্লাহ আবু আদালতকে বলেন, সহযোগী জিসানের গরুর ব্যবসার আড়ালে মডেল পিয়াসা ও মিশু মাদকের কারবার করতেন। বিচারকের অনুমতি নিয়ে এ দাবির বিপরীতে পিয়াসা বলেন, আমার বাবা বার এট ল পড়েছেন। আমি নিজেও এশিয়ান টিভিতে চাকরি করেছি। আমি মাদকের সঙ্গে জড়িত নই। জিসান ও মিশু আমার বন্ধু। জিসানের স্ত্রীর সঙ্গে আমার ভালো বন্ধুত্ব। আমি গরুর ব্যবসা করতে যাবো কেন?
পিয়াসা আরো বলেন, স্যার, একটি বিষয় বলে রাখি। আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলের সঙ্গে আমার বিয়ে হয়েছিল। আমি বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে বিভিন্ন বক্তব্য দিয়েছি। তারপর থেকেই আমাকে বিভিন্ন হুমকির মুখে পড়তে হচ্ছে। হঠাৎ করে একদিন রাতে আমার বাসায় ডিবি পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে। পরে বলা হয় আমার বাসায় নাকি ৬৭ পিস ইয়াবা পাওয়া গিয়েছে। আমি ইয়াবার সঙ্গে জড়িত নই। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী রিমান্ডের এ আদেশ দেন।
এর আগে গত ২রা আগস্ট পিয়াসার বিরুদ্ধে ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। গত ১লা আগস্ট রাতে গোয়েন্দা পুলিশের গুলশান বিভাগের একটি দল বারিধারায় পিয়াসার বাসায় অভিযান চালায়। এ সময় তার বাসা থেকে ৪ প্যাকেট ইয়াবা জব্দ করে ডিবি। এছাড়া রান্নাঘরের ক্যাবিনেট থেকে ৯ বোতল বিদেশি মদ উদ্ধার করা হয়। ফ্রিজে পাওয়া যায় সিসা তৈরির কাঁচামাল।
অপরদিকে, রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বাবর রোডের বাসা থেকে ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার মডেল মরিয়ম আক্তার মৌ’র (মৌ আক্তার) মাদক মামলায় ফের ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সতব্রত সিকদার। এদিন দুপুর সাড়ে ১২টায় ৩ দিনের রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করা হয় মডেল মরিয়ম আক্তার মৌকে। এ সময় ফের ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ। আসামিপক্ষের আইনজীবী রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করলে রাষ্ট্রপক্ষ এর বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক রিমান্ডের এই আদেশ দেন।
এর আগে গত ২রা আগস্ট ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে মৌকে আদালতে হাজির করা হয়। পরে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আশেক ইমাম শুনানি শেষে তার ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

ডায়ালসিলেট এম/

0Shares