শহীদ ও তার স্ত্রী ফারজানার ১০ বছরের কারাদণ্ড

প্রকাশিত: ৯:২২ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২, ২০২১

শহীদ ও তার স্ত্রী ফারজানার ১০ বছরের কারাদণ্ড

ডায়ালসিলেট ডেস্ক:;অস্ত্র, বিস্ফোরক ও জালটাকা রাখার মামলায় পলাতক লে. কর্নেল (বরখাস্ত) শহীদ উদ্দিন খান ও তার স্ত্রী ফারজানা আনজুম খানের ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে আদালত তাদেরকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা এবং অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাভোগের আদেশ দিয়েছেন। বুধবার ঢাকার অষ্টম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ সৈয়দা হাফছা ঝুমার আদালত এ রায় দেন। এ ছাড়া, পলাতক আসামি শহীদ উদ্দিন খান ও তার স্ত্রী ফারজানার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন। বুধবার ঢাকার অষ্টম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ সৈয়দা হাফছা ঝুমার আদালত এই রায় ঘোষণা করেন। বিচার চলাকালীন বিভিন্ন সময়ে ১০ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেছেন আদালত। অপরদিকে, অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় এ মামলায় খোরশেদ আলম পাটোয়ারী ও সৈয়দ আকিদুল আলীকে খালাস দেন আদালত। মামলার এজাহারনামীয় আসামি জহুরুল হক খোন্দকার বিচার চলাকালে মারা যাওয়ায় আসামির তালিকা থেকে তার নাম বাদ দেয়া হয়। শহীদ উদ্দিন খান ও তার স্ত্রী ফারজানা আনজুম খান উভয়েই দেশের বাইরে রয়েছেন। আদালতে তাদের পলাতক হিসেবে দেখানো হয়েছে এবং এ কারণে তাদের বিরুদ্ধে আদালত গ্রেপ্তারি পরোয়ানাসহ সাজা জারি করেছে বলে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী জানিয়েছেন। মামলার বিবরণীতে বলা হয়েছে, ২০১৯ সালের ১৫ই জানুয়ারি ঢাকার ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় শহীদ উদ্দিন খানের বাসায় অভিযান চালিয়ে দুইটি পিস্তল, ছয়টি গুলি, দুইটি শটগান ও তিন লাখ সমমানের জালটাকা উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় ১৭ই জানুয়ারি কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট শহীদ উদ্দিন খানসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে নগদ ও জালটাকা উদ্ধার করায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করেন। এ ছাড়া, অস্ত্র আইনেও একটি মামলা করা হয়। অস্ত্র আইনে দায়ের করা মামলায় অভিযোগ করা হয়, অভিযুক্তরা পরস্পর যোগসাজশে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে সরকার ও রাষ্ট্রের সার্বভৌমত্বের জন্য হুমকি এবং জননিরাপত্তা বিঘ্নকারী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। এর আগে গত বছরের ১০ই নভেম্বর অস্ত্র আইনের একটি মামলায় লেফটেন্যান্ট কর্নেল (বরখাস্ত) শহীদ উদ্দিন খান, তার স্ত্রী ফারজানা আনজুম খানসহ মোট চারজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। গতকাল বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় রায় ঘোষণা করা হলো। এ ছাড়া, গত বছর ২০শে ডিসেম্বর আয়কর ফাঁকির একটি মামলায় শহীদ উদ্দিন খানকে নয় বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

ডায়ালসিলেট এম/

0Shares