বাংলাদেশে ফিরে করোনা আক্রান্ত ২২ চীনা নাগরিক

প্রকাশিত: ৪:১৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৭, ২০২১

বাংলাদেশে ফিরে করোনা আক্রান্ত ২২ চীনা নাগরিক

ডায়ালসিলেট ডেস্ক::বরগুনার তালতলী তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ২২ চীনা নাগরিক করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার সকালে তাদের করোনা পজেটিভ আসে। তারা সবাই দেড় মাস আগে চীন থেকে তালতলীতে এসেছেন। আজ সকালে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের কাছে তাদের করোনার প্রতিবেদন পাঠানো হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, নমুনা দেয়া ৩৭ জনের মধ্যে ২২ জন চীনা নাগরিকের করোনা পজিটিভ আসে। তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের মধ্যেই তাদেরকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। স্বাস্থ্য বিভাগ সার্বক্ষণিক নজরদারিতে রেখেছেন। বরগুনার সিভিল সার্জন ডাক্তার মারিয়া হাসান জানান, করোনা উপসর্গ নিয়ে গতকাল বুধবার তালতলী তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে কর্মরত ৩৭ জন চীনা নাগরিক তালতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। সেখান থেকে নমুনা বরিশাল পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়। তালতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কাওসার হোসেন জানান, করোনা শনাক্ত হওয়া চীনা নাগরিকদের তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের মধ্যেই আইসোলেশন সেন্টারে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিয়ে রাখা হয়েছে। তাদেরকে আলাদা কেয়ার্টারে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। করোনা আক্রান্ত নাগরিকদের জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রস্তুত রাখা হয়েছে। কেউ গুরুতর অসুস্থ হলে তাৎক্ষণিক চিকিৎসার জন্য পরিবহন ও অক্সিজেন প্রস্তত রয়েছে। তিনি আরও বলেন, নির্মাণাধীন এই বিদ্যুৎকেন্দ্রে ১১শ’ বাংলাদেশী শ্রমিক কাজ করেন। তারা সবাই সুস্থ রয়েছেন। তারপরেও বাড়তি সতর্কতা হিসেবে সব শ্রমিককে করোনা টেষ্ট করানো হবে। আজ দুপুরে ৩শ’ রেপিড এন্টিজেন্ট কিট উপজেলা প্রশাসনের একটি দল স্বাস্থ্য বিভাগকে সঙ্গে নিয়ে বিদ্যুৎকেন্দ্রে গিয়েছেন। বিকাল থেকেই টেষ্ট শুরু হবে। ১১শ’ শ্রমিক মানে ১১শ’ পরিবার। বাংলাদেশি শ্রমিকরা যদি করোনা আক্রান্ত হন তাহলে বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজ স্থগিত করে কেন্দ্রটি লকডাউন করার জন্য জেলা প্রশাসকের কাছে অনুমতি চাইবেন তিনি। বরগুনার জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান বলেন, যেহেতু এটি উন্নয়ন প্রকল্প তাই এখনই কাজ বন্ধ করে লকডাউন করা ঠিক হবেনা। চীনা নাগরিকরা যারা আক্রান্ত হয়েছেন তারা কেউই বাংলাদেশী শ্রমিকদের সংস্পর্শে আসেননি। তবে, তারপরেও যদি দেশী শ্রমিকরা করোনা আক্রান্ত হন তবে লকডাউনের বিকল্প নেই। বিষয়টি সম্পর্কে সব সময় খোঁজ রাখা হচ্ছে।

ডায়ালসিলেট এম/

0Shares